শ্যালিকাকে ধর্ষণের পর হত্যা, দুলাভাইয়ের মৃত্যুদন্ড

ডেস্ক রিপোর্ট : কিশোরগঞ্জের নিকলীতে শ্যালিকাকে ধর্ষণের পর হত্যার দায়ে দুলাভাই শাহীনকে মৃত্যুদ- দিয়েছেন আদালত। একই সঙ্গে তাকে এক লাখ টাকা জরিমানা করা হয়েছে।

রোববার দুপুরে কিশোরগঞ্জের নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল-১ এর বিচারক কিরণ শংকর হালদার এ রায় দেন। মৃত্যুদ-প্রাপ্ত শাহিন নিকলী উপজেলার ভাটি বরাটিয়া গ্রামের মানিক মিয়ার ছেলে। রায় ঘোষণার সময় তিনি আদালতে উপস্থিত ছিলেন। অভিযোগ প্রমাণিত না হওয়ায় মামলার অপর দুই আসামিকে বেকসুর খালাস দেয়া হয়। তারা হলেন- রুবেল ও কাজল।

মামলার বিবরণে জানা গেছে, নিকলী উপজেলার দামপাড়া ইউনিয়নের শেখ নবীনপুর গ্রামের ফাইজুল ইসলামের মেয়ে সুজেনার স্বামী শাহিন শ্বশুরবাড়িতে ঘরজামাই হিসেবে বসবাস করতেন। একই ঘরের অপর কক্ষে থাকতো সুজনার ছোট বোন পঞ্চম শ্রেণিতে পড়ুয়া মাদরাসাছাত্রী রোকসানা।

২০১৭ সালের ১১ মে গভীর রাতে শাহিন তার শালিকা রোকসানাকে ঘরের বাইরে নিয়ে ধর্ষণের পর হত্যা করে পালিয়ে যায়। রাত ৩টার দিকে বসতঘরের পাশে একটি পাটক্ষেত থেকে রোকসানার মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ।

এ ব্যাপারে নিহতের বাবা ফাইজুল ইসলাম বাদী হয়ে ১২ মে শাহিনকে আসামি করে নিকলী থানায় মামলা করেন। একই বছরের ৮ আগস্ট শাহিনকে গ্রেফতার করে পুলিশ। তদন্ত শেষে ২০১৮ সালর ২২ জানুয়ারি তিনজনের নামে আদালতে অভিযোগপত্র দাখিল করে পুলিশ।

Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *