শ্রীলঙ্কায় হামলা চালিয়েছে ৯ আত্মঘাতী, তাদের একজন নারী

ডেস্ক: শ্রীলঙ্কায় গত রোববার একের পর এক ভয়াবহ বোমা হামলার ঘটনায় নিহত মানুষের সংখ্যা বেড়ে ৩৫৯-এ পৌঁছেছে। এদের মধ্যে ৩৯ জন বিদেশি। হামলায় মারাত্মকভাবে আহত হওয়ার পর পরবর্তী সময় এসব লোকজনের মৃত্যু হয়েছে। এ হামলায় অন্তত ৫০০ লোক আহত হয়েছেন। গতকাল বুধবার দেশটির পুলিশ কর্মকর্তারা এ তথ্য দিয়েছেন বলে রয়টার্সের খবরে জানানো হয়। রোববারের বোমা হামলার ঘটনায় জড়িত সন্দেহে গত মঙ্গলবার অন্তত ১৮ জনকে আটক করা হয়েছে। এ নিয়ে এখন পর্যন্ত ৬০ জনকে আটক করা হলো।
শ্রীলঙ্কার কয়েকটি চার্চ ও হোটেলে একযোগে চালানো বোমা হামলায় নয় আত্মঘাতী অংশ নিয়েছে এবং তাদের একজন নারী ছিল বলে জানিয়েছেন দেশটির একজন মন্ত্রী। হামলাকারীদের মধ্যে আট জনকে শনাক্ত করা হয়েছে বলে জানিয়েছে পুলিশ। গতকাল বুধবার এক সংবাদ সম্মেলনে দেশটির প্রতিরক্ষা প্রতিমন্ত্রী রাভন বিজয়বর্ধনে এসব কথা জানান বলে খবর বার্তা সংস্থা রয়টার্সের। শাংরি-লা হোটেলে আত্মঘাতী হামলা স্থানীয় কট্টরপন্থি ইসলামি গোষ্ঠীর নেতা চালিয়েছে বলে জানিয়েছেন বিজয়বর্ধনে। হামলাকারীদের একজন যুক্তরাজ্য ও অস্ট্রেলিয়ায় পড়াশোনা করেছে বলেও জানিয়েছেন তিনি।
মধ্যপ্রাচ্যভিত্তিক জঙ্গিগোষ্ঠী আইএস হামলার দায় স্বীকার করেছে। এ ছাড়া শ্রীলঙ্কার স্থানীয় চরমপন্থী গোষ্ঠী ন্যাশনাল তাওহিদ জামায়াতের (এনটিজে) ওপর দায় চাপাচ্ছে দেশটির সরকার।
দক্ষিণ এশিয়ার ইতিহাসে শ্রীলঙ্কা সন্ত্রাসী হামলা সবচেয়ে প্রাণঘাতী বলে জানিয়েছে রয়টার্স।

Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *