সন্ত্রাসী হামলার জন্য দায়ীদের ঘরে ঢুকে মেরে আসবো: মোদি

ডেস্ক: ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি বলেছেন, ‘এবার ঘরে ঢুকে মারবো। ভারতে জঙ্গি হামলার নেপথ্যে যারা রয়েছে, তারা যদি পাতালেও লুকিয়ে থাকে তাহলেও তাদের খুঁজে বের করবো। আমি দীর্ঘদিন অপেক্ষা করতে পারি না। বেছে বেছে হিসাব নিতে আমি খুব ভালো জানি।’ গত সোমবার গুজরাটের আমেদাবাদে এক জনসভায় দেওয়া ভাষণে তিনি এসব কথা বলেন। ভারতের প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘আজ ৪০ বছর ধরে জঙ্গিরা ভারতের বুকে গুলি চালিয়ে আসছে। কিন্তু যারা শুধু ভোটের রাজনীতি নিয়ে অন্ধ হয়ে আছে, তারা সেদিকে ফিরে পর্যন্ত দেখেনি। আমি ক্ষমতা বা আসনের পরোয়া করি না। আমি চাই দেশের জনগণের সুরক্ষা।’
নরেন্দ্র মোদি বলেন, ‘ভারতের বিরোধীদলীয় নেতারা যেসব বয়ান দেন, তা পাকিস্তানি সংবাদমাধ্যমের শিরোনামে পরিণত হয়। দেশের কল্যাণের কথা চিন্তা করলে এগুলো কি সঠিক পদক্ষেপ?’ আমেদাবাদের সিভিল হাসপাতালে ২০০৮ সালে যে হামলা হয়েছিল তার প্রসঙ্গ টেনে মোদি বলেন, ‘সে সময়ে দিল্লিতে যারা বসেছিলেন, তাদের কি পাকিস্তানকে শিক্ষা দেওয়া উচিত ছিল না?’
সরকারের উন্নয়ন কাজের উল্লেখ করে তিনি বলেন, ‘আমরা একটা কাজ শেষ করে বসে থাকি না। অপর কাজটা শুরু করার চেষ্টা করি।’ নরেন্দ্র মোদি বলেন ‘আমি কমন-মোবিলিটি কার্ড চালু করেছি। জনগণের বহু সমস্যার সমাধান করছে এই কার্ড। মানুষের কষ্ট লাঘব করতেই এ ব্যবস্থা। এই কার্ডের মাধ্যমে আপনি টাকা তুলতে কিংবা শপিং করতে পারবেন। মেট্রো বা অন্য কোনও ট্রান্সপোর্টেও এই কার্ড ব্যবহার করা যায়।
ভারতের প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘আলাদা-আলাদা কোম্পানির তৈরি সিস্টেমের কারণে দেশের মধ্যে একটা সমন্বিত ব্যবস্থা বিকশিত হচ্ছে না। একটা শহরের কার্ড অন্য অন্য শহরে অকেজো হয়ে যায়। এই সমস্যার কথা মাথায় রেখে ব্যাপক স্তরে কাজ শুরু হয়েছে। অনেক মন্ত্রণালয় ও বিভাগকে এই কাজে লাগানো হয়েছে।’ সূত্র: এনডিটিভি।

Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *