সরকার মানুষ বাঁচানোর কোনও কাজ করেনি: রিজভী

ডেস্ক : বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব অ্যাডভোকেট রুহুল কবির রিজভী আহমেদ বলেছেন, ‘সরকার মানুষ বাঁচানোর কোনও কাজ করেনি। তথাকথিত উন্নয়নের নামে আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা পকেট ভারী করার কাজ করেছে। ক্যাসিনো দিয়ে এই টাকাকে বিদেশে পাচার করার ব্যবস্থা করেছে।‘

শুক্রবার সকালে মুন্সীগঞ্জের সিরাজদিখান উপজেলার নিমতলীতে বিএনপির স্বেচ্ছাসেবক বিষয়ক সম্পাদক মীর সরফত আলী সপুর ত্রাণ বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে এসব কথা বলেন তিনি।

বিএনপির এই নেতা বলেন, ‘জনগণকে সহায়তা করার জন্য বিরোধী দলের নেতাকর্মীরা এগিয়ে যাবে, সেখানেও সরকার বাধা দিচ্ছে। অর্থাৎ গরিব মানুষ, নিরন্ন মানুষ, ক্ষুধার্ত মানুষ বেঁচে থাক এটা সরকার চায় না। চায় না বলেই তাদের নিপীড়ন-নির্যাতন এই ভয়ংকর মহামারির মধ্যেও অব্যাহত রেখেছে।’

তিনি বলেন, ‘বাংলাদেশের ৭০/৭৫ ভাগ হাসপাতালে করোনা চিকিৎসার ব্যবস্থা নেই। মানুষ কীভাবে বাঁচবে? রোগীদের বাঁচানোর জন্য হাসপাতালে যন্ত্রপাতির ব্যবস্থা করেনি। উন্নতমানের স্কুল, কলেজ বিশ্ববিদ্যালয় করেনি। যার মাধ্যমে প্রকৃত উন্নয়ন হবে সেটা করেনি। ভয়ংকর পরিস্থিতি তৈরি করে এখন মানুষ মরুক বা বাঁচুক তাতে সরকারের কোনও দায়িত্ব নেই। সরকার চাচ্ছে, যে বাঁচে বাঁচলো, যে মরে মরলো। তারা তো ঠিক আছে, তাদের নেতাকর্মীরাতো খেয়ে পরে ঠিক আছে।’

ত্রাণ বিতরণের সময় আরও উপস্থিত ছিলেন স্বেচ্ছাসেবক বিষয়ক সম্পাদক মীর সরফত আলী সপু, মুন্সীগঞ্জ জেলা বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক ও সিরাজদিখান উপজেলা বিএনপির সভাপতি আবদুল কুদ্দুস ধীরন, শ্রীনগর উপজেলা বিএনপির সভাপতি মো. শহীদুল ইসলাম, সাধারণ সম্পাদক আবুল কালাম কানন, সিরাজদিখান উপজেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক মো. আওলাদ হোসেন মোল্লা, স্বেচ্ছাসেবক দল কেন্দ্রীয় কমিটির সাবেক সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক মো. আওলাদ হোসেন উজ্জ্বল প্রমুখ।

Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *