সাঁথিয়ায় মাইকে ঘোষণা দিয়ে দুই গ্রামবাসীর রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষ : আহত ১০

পিপ (পাবনা) : পাবনার সাঁথিয়ায় তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে মাইকে ঘোষণা দিয়ে দু’গ্রামবাসীর মধ্যে রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। গতকাল মঙ্গলবার দুপুরে উপজেলার পাতাইলহাট মাঠে এ ঘটনা ঘটে। এতে উভয় পক্ষের প্রায় ১০ জন আহত হয়। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। ঘটনার পর থেকে এলাকায় থমথমে অবস্থা বিরাজ করছে। স্থানীয়রা আশংকা করছে যে কোন সময় ঘটতে পারে আবারও সংঘর্ষের ঘটনা।

পুলিশ ও স্থানীয় সুত্রে জানা যায়, ছোট পাতাইলহাট গ্রামের আব্দুল মান্নানের পাটের ক্ষেতের মধ্যে দিয়ে পাতাইলহাটের মুকুল মন্ডলের লোকজন ঘোড়ার গাড়ী,মহিষের গাড়ী ও ভ্যান দিয়ে প্রতিনিয়নতই মাঠ থেকে পিয়াজ তুলে যাতায়াত করত। এতে পাট ক্ষেত নষ্ট হয়ে যেত। গতকাল মঙ্গলবার পুনরায় গাড়ী দিয়ে পিয়াজ নেয়ার সময় মান্নানের লোকজন পাটের ক্ষেত নষ্ট হওয়ার প্রতিবাদ করলে উভয়পক্ষের মারপিট শুরু হয়। পরে উভয়পক্ষই মসজিদের মাইকে ঘোষণা দিয়ে দেশীয় অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। খবর পেয়ে নাগডেমড়া ইউপি চেয়ারম্যান হারুন অর রশিদের নেতৃত্বে থানার এসআই একরামুল হক সংগীয় ফোর্স নিয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।

এ ঘটনায় উভয়পক্ষের প্রায় ১০ আহত হয়। আহতরা হলো পাথাইরহাট গ্রামের কোরবান মন্ডল,মুকুল মন্ডল,মোখলেছ মুরাদ ও ছোট পাথাইলহাট গ্রামের মান্নান,সাইফুল,নুরনবি,রুবেল। এদেরকে পাশ্ববতীৃ বেড়া সাঁথিয়া হাসপাতালে ভর্তি হয়েছে বলে জানা গেছে। এ ঘটনার পর থেকে এলাকায় থমথমে অবস্থা বিরাজ করছে।

সাঁথিয়া থানার এসআই একরামুল হক ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে জানান এ ঘটনায় কোন পক্ষই থানায় অভিযোগ দিতে আসেনী। আসলে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহন করবো।

Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!