সাঁথিয়ায় সন্ত্রাসীদের হাতুড়ীর আঘাতে আহত মানিক মারা গেছেন

পিপ (পাবনা) : পাবনার সাঁথিয়ায় সন্ত্রাসীদের হাতুড়ীর আঘাতে গুরতর আহত যুবক মানিক(৩৫) ৮দিন জীবন-মৃত্যুর সন্ধিক্ষণে থেকে শুক্রবাব রাতে রাজশাহী হাসপাতালে মারা গেছেন। মানিক উপজেলার আতাইকুলা থানাধীন ভুলবাড়িয়া ইউনিয়নের তেবাড়ীয়া গ্রামের আঃ মান্নানের ছেলে।

এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়, ২৭ ডিসেম্বর শুক্রবার সন্ধ্যায় উপজেলার তেবাড়িয়া বাজারে মমিন বিশ্বাস তার সাঙ্গপাঙ্গদের নিয়ে আড্ডা দিচ্ছিল। এ সময় মানিক বাজারে এলে পুর্ব শত্রুতার জের ধরে পরিকল্পিতভাবে তাকে হাতুড়ী ও লোহার রড দিয়ে এলোপাতাড়ী পিটিয়ে গুরুতর জখম করে। খবর পেয়ে মানিকের লোকজন তাকে উদ্ধার করে প্রথমে পাবনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করে। অবস্থার অবনতি হওয়ায় তাকে রাজশাহীতে একটি বেসরকারী ক্লিনিকে ভর্তি করে আইসিইউতে রাখা হয়।

পারিবাবিক সূত্রে জানা যায়, আইসিইউতে ৮দিন জীবন-মৃত্যুর সন্ধিক্ষণে চিৎিসাধীন থাকা অবস্থায় শুক্রবার রাতে মানিক মারা যান। ঘটনার দিন মানিকের ভাই আঃ মালেক বাদী হয়ে আতাইকুলা থানায় ২৩ জন নামীয় ও অজ্ঞাত আরো ১০/১২ জনের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেন। পুলিশ এ পর্যন্ত ভুলবাড়িয়া ইউনিয়নের বরইবাড়িয়া গ্রামের মোফাজ বিশ্বাসের ছেলে মমিন বিশ্বাস ও বক্কার খাঁর ছেলে বাসেদ খাঁ নামে দু’জনকে আটক করেছে।

উল্লেখ্য, বছর দেড়েক আগে একই বাজারে প্রকাশ্য দিবালোকে গুলি করে তেবাড়িয়া উচ্চ বিদ্যালয়ের সভাপতি ও অবসরপ্রাপÍ সেনা সদস্য আব্দুল গফুরসহ দু’জনকে হত্যা করা হয়। তেবাড়িয়া বাজারের কয়েকজন ব্যবসায়ী জানান, স্থানীয় আধিপত্য বিস্তার ও দখলকে কেন্দ্র করে এই হত্যাকান্ডগুলো ঘটে আসছে।। আতাইকুলা থানার ওসি তদন্ত কামরুল ইসলাম মানিকের মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *