সাঁথিয়ায় সড়ক উন্নয়নে বাধা বৈদ্যুতিক খুঁটি

মনসুর আলম খোকন, সাঁথিয়া (পাবনা) : সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের দায়িত্বহীনতা ও অপরিকল্পিতভাবে বৈদ্যুতিক খুঁটি স্থাপনের কারণে পাবনার সাঁথিয়ায় সড়ক প্রসস্তকরণ কাজে জটিলতা দেখা দিয়েছে। ফলে মাসের পর মাস বন্ধ রাখতে হচ্ছে সড়কের পাকাকরণের কাজ। অপরদিকে সড়কে বৈদ্যুতিক খুঁটির কারণে দুর্ঘটনাসহ বিভিন্ন সমস্যার সম¥ুখীন হতে হচ্ছে ওই সড়কে চলাচলকারী জনগণের। অভিযোগ রয়েছে, খুঁটি অপসারণের জন্য চিঠি দেয়া সত্ত্বেও কোন ব্যবস্থা নিচ্ছেন না পল্লীবিদ্যুৎ অফিস।

সাঁথিয়া স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তর সূত্রে জানা যায়, উপজেলার করমজা ইউনিয়ন পরিষদ কার্যালয় থেকে সানিলা হয়ে চতুরহাট সিএনডবি বাস স্ট্যান্ড পর্যন্ত পাকাকরণ কাজ ১৯/২০ অর্থবছরে শুরু হয়। সানিলা সাহাপাড়ার এনামুলের বাড়ির সামনে সড়কটির মাঝখানে রয়েছে একটি বৈদ্যুতিক খুঁটি। ফলে মাঝে মধ্যেই ঘটছে দুর্ঘটনা। অপরদিকে খুঁটিটি অপসারণ না করায় বন্ধ রয়েছে সড়ক উন্নয়নের আংশিক কাজ । উপজেলা এলজিইডি অফিস থেকে গত জুন মাসে পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি ২ এর অফিস বরাবর চিঠি দেওয়া হলেও তা এখনও পর্যন্ত অপসারণ করা হয়নি। খুঁটি অপসারণ না করায় বন্ধ রয়েছে সড়ক পাকাকরণ কাজ।

খুঁটির কারণে প্রতিনিয়ত দুর্ঘটনাসহ যাতায়াতে প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি হচ্ছে পথচারীদের।পাবনা পল্লীবিদ্যুত-২ এর অধীনে প্রায় সারা বছরই রাস্তার পাশ দিয়ে নতুন-পুরাতন বিদ্যুতের লাইন পরিবর্তন সংযোজন করতে খুঁটি বদলানো হয়ে থাকে। আর এসব কাজ ঠিকাদারের মাধ্যমে করানো হয়। তারা যেমন তেমন করে রাস্তার গাইডওয়াল/এজিং ঘেঁষে পুঁতে দায়িত্ব শেষ করেন। বর্তমান সরকারের গ্রামকে শহরে উন্নয়ন প্রকল্পে গ্রামের রাস্তার প্রশস্তকরণে বছর ধরেই উপজেলা এলজিইডি, সড়ক ও জনপথ বিভাগ ও জেলা পরিষদসহ বিভিন্ন বিভাগ কোন না কোন রাস্তা পাকাকরণে কাজ করে যাচ্ছে। এ কাজের প্রধান অন্তরায় দেখা দিচ্ছে বৈদ্যুতিক খুঁটি অপসারণের জটিলতা।

রাস্তা পাকাকরণ কাজে সরকারকে বৈদ্যুতিক খুঁটি অপসারণের জন্য বরাদ্দ রাখতে হচ্ছে। এতে যেমন বাড়তি অর্থ ব্যয় হচ্ছে, তেমনি রাস্তা নির্মাণেও বাধাগ্রস্ত হচ্ছে। পল্লীবিদ্যুৎ সমিতি পরিকল্পিতভাবে রাস্তার কর্তৃপক্ষের সাথে সমন্বয় করে রাস্তার শেষ সীমানায় বৈদ্যুতিক খুঁটি পুঁতলে সরকারি অর্থ ও সময় দুটিই বাঁচানো সম্ভব বলে অভিমত তাদের।

সাঁথিয়া উপজেলা প্রকৌশলী মোঃ শহিদুল্লাহ জানান, খুঁটিটি অপসারণের জন্য তিন মাস পূর্বে চিঠি দিলেও পল্লীবিদ্যুৎ-২(কাশিনাথপুর) অফিস কর্ণপাত করেনি। এ বিষয়ে স্থানীয় এমপি এ্যাড: শামসুল হক টুকু ও উপজেলা নির্বাহী অফিসার এসএম জামাল আহমেদকে অবগত করা হলে তারা কর্তৃপক্ষের সাথে কথা বলেন। তিনি আরও বলেন পল্লী বিদ্যুতের অপরিকল্পিত বৈদ্যুতিক খুঁটি পুঁতা ঠিক নয়। এতে রাস্তা প্রশস্ততকরণে সমস্যা দেখা দেয়।

তারা কর্তৃপক্ষের সাথে সমন্বয় করে কাজ করলে এ সমস্যা দুর করা সম্ভব হয়।পাবনা-২(কাশিনাথপুর) পল্লীবিদ্যুৎ অফিসের জেনারেল ম্যানেজার প্রকৌশলী ইমদাদুল হক জানান, রাস্তার উপরে খুঁটি রয়েছে এ বিষয়ে আমি অবগত নই। বিষয়টি জেনে অতি দ্রুত সময়ে তা অপসারণ করা হবে। অপর এক প্রশ্নে তিনি জানান, ঠিকাদাররা তাদের সুবিধামত খুঁটি পুতে থাকেন।

আবার অনেক সময় জমির মালিকরা বাঁধা দিলে রাস্তার পাশে খুঁটি পুঁততে হয়। তবে পরিকল্পনা অনুযায়ী কাজ করলে পাকাকরণের সময়কার জটিলতা থেকে রক্ষা পাওয়া যাবে।সাঁথিয়া উপজেলা নির্বাহী অফিসার এসএম জামাল আহমেদ জানান, রাস্তার খুঁটি অপসারণে আমি পল্লীবিদ্যুৎ অফিসকে অবগত করেছি। খুঁটি অপসারণের কথা বললেও এখনও খুঁটি যথাযথ স্থানে রয়েছে। তাদের উচিত দীর্ঘস্থায়ী চিন্তা করে রাস্তায় খুঁটি পুতা।

Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *