সাকিবের কাছে সেঞ্চুরি চান ডমিঙ্গো

স্পোর্টস: ‘হোয়াট ওয়াজ দ্যাটৃ!’- ধারাভাষ্যকক্ষে কার্টলি অ্যামব্রোসের বিস্মিত উচ্চারণ। অ্যান্টিগা টেস্টের তৃতীয় দিনের ঘটনা সেটি। কেমার রোচকে তেড়েফুঁড়ে মারতে গিয়ে অল্পের জন্য আউট হননি সাকিব আল হাসান। ব্যাটিং বিপর্যয়ের মধ্যে উইকেটে গিয়ে দ্বিতীয় বলেই বাংলাদেশ অধিনায়কের অমন শট যেন বিশ্বাস করতে পারছিলেন না অ্যামব্রোস। সাকিব অবশ্য তখনই থামেননি। আরও কয়েকটি আগ্রাসী শট খেলার পর সামলে নেন নিজেকে। শুধু দ্বিতীয় ইনিংসেই নয়, প্রথম ইনিংসেও উইকেটে গিয়ে শুরুতে বেশ কিছু এলোমেলো শট খেলেন সাকিব। উড়িয়ে মারার চেষ্টায় জীবন পান ২ রানে। তবে দুই ইনিংসেই শুরুর সময়টা পার হয়ে যাওয়ার পর নিজেকে গুছিয়ে নিয়ে বেশ ভালোভাবেই ইনিংস গড়েন তিনি। দলের চরম ব্যাটিং ব্যর্থতার মাঝে ফিফটি করেন দুই ইনিংসেই। অধিনায়কের ব্যাটিংয়ে এমনিতে খুশি রাসেল ডমিঙ্গো। তবে শুরুর সময়ের অমন ব্যাটিং নিয়েই আপত্তি বাংলাদেশ কোচের। সাকিব বরাবরই ব্যাট হাতে ইতিবাচক থাকতে ও শট খেলতে ভালোবাসেন, চাপ চেপে বসতে দিতে চান না। এসব জানেন কোচ। তবে অধিনায়কের কাছে কোচের চাওয়া, আরেকটু গোছানো ব্যাটিং। “সাকিবের ব্যাটিংয়ে সবসময়ই তাড়না দেখা যাবে, অভিপ্রায় নিয়েই ব্যাট করে সে। আমরা চাই না সে স্লগ করুক, চাই যে ভালো ক্রিকেট শট খেলুক। মনে হচ্ছে, তার চাওয়া ছিল যে বোলারদের ওপর চাপ কিছুটা ফিরিয়ে দেওয়া। তবে সে জানে যে শুরুর ওই পর্যায়টা পেরিয়ে গেলে সে যথাযথভাবে ব্যাট করবে এবং শেইপ ধরে রাখবে।” “কখনও কখনও পাল্টা আক্রমণ করতে হয়, কোনো সংশয় নেই তাতে। তবে ¯্রফে নিশ্চিত করতে হবে নিজের শেইপ ও পজিশন যেন ঠিক থাকে, মাথার অবস্থান অনড় থাকে। কারণ সে মানসম্পন্ন ব্যাটসম্যান, আজকেও যেমন দেখিয়েছে।” ১৫ বছরের টেস্ট ক্যারিয়ারে অসংখ্য রেকর্ড, মাইলফলকে নিজেকে রাঙিয়েছেন সাকিব। বাংলাদেশের সর্বকালের সেরা ক্রিকেটার হয়ে গেছেন তিনি অনেক আগেই। অনেক অর্জনে সমৃদ্ধ তার ক্যারিয়ার। তবে ৬২ টেস্টে ৩৪ বার পঞ্চাশ ছুঁয়ে ¯্রফে ৫টিকে তিনি রূপ দিতে পেরেছেন সেঞ্চুরিতে। ডমিঙ্গোর চাওয়া, আরেকটু গোছানো ব্যাটিং করে আরও বড় ইনিংস খেলায় দৃষ্টি রাখা উচিত সাকিবের। “সে শতরান করার মতো যথেষ্ট ভালো। শতরান তাকে করতে হবে। এখন সে সাত নম্বরে ব্যাট করছে, তবে এমনিতে তো ছয়ে ব্যাট করে। শীর্ষ ছয় ব্যাটসম্যানদের সেঞ্চুরিতে চোখ রাখতে হয়। আক্রমণ ও রক্ষণের সেই ভারসাম্য তাকে করতে হবে।” বাংলাদেশের শততম টেস্টে ২০১৭ সালের মার্চে শ্রীলঙ্কা সফরে সবশেষ টেস্ট সেঞ্চুরি করেছিলেন সাকিব। এরপর ২৩ ইনিংস খেলে ৮ বার ফিফটির স্বাদ পেয়েছেন, ২ বার ছুঁয়েছেন ৮০। কিন্তু শতরানে আর পা রাখা হয়নি।

Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *