সাত বছরের শিশুকে ধর্ষন

এফএনএস (লালমনিরহাট) : বাড়িতে কেউ না থাকায় পাঁচ টাকা দেয়ার লোভ দেখিয়ে সাত বছরের এক শিশুকে ধর্ষন করার অভিযোগ উঠেছে ছপিত উল্লাহ মুন্সি (৬৫) নামে এক মসজিদের ইমামের বিরুদ্ধে। লালমনিরহাটের আদিতমারী উপজেলার সারপুকুর ইউনিয়নের দেল্লারমোর এলাকায় এ ধর্ষণের ঘটনা ঘটে।
বুধবার রাতে শিশুটির বাবা বাদী হয়ে আদিতমারী থানায় একটি ধর্ষন মামলা দায়ের করার পর পরই ধর্ষক ঈমামকে গ্রেফতার করে আদিতমারী থানা পুলিশ।
গ্রেফতার ইমাম ছপিত উল্লাহ মুন্সি লালমনিরহাটের আদিতমারী উপজেলার সারপুকুর ইউনিয়নের দেল্লারমোর এলাকার মৃত ওসুল খার ছেলে।
ধর্ষনের শিকার শিশুটি বর্তমানে লালমনিরহাট সদর হাসপাতালে মৃত্যুর সাথে পাঞ্জা লড়ছে।
জানা যায়, মঙ্গলবার সকালে শিশুটির বাবা মা কাজে গেলে নিজ বাড়িতে শিশুটিকে ধর্ষণ করে ছপিত মুন্সি। পরে শিশুটিকে ধর্ষণের কথা কাউকে না বলার জন্য পাঁচ টাকা দেন এবং বিভিন্ন ভয় দেখান। বিষয়টি পরবর্তীতে শিশুটির বাবা জানলে সে যেন থানায় অভিযোগ করতে না পারে এজন্য শিশুটির বাবা মাকে আটকে রাখে একটি দালাল চক্র। ঘটনাটি চাউর হলে কয়েকজন সাংবাদিক তথ্য সংগ্রহের জন্য শিশুটির বাড়ী গেলে দালালরা পালিয়ে যায়। পরে সাংবাদিকদের সহযোগীতায় অসুস্থ শিশুটিকে তার বাবা-মা লালমনিরহাট সদর হাসপাতালে ভর্তি করেন।
আদিতমারী থানার অফিসার ইনচার্জ মোক্তারুল ইসলাম ঘটনার সত্যতা শিকার করে বলেন, ঘটনা শোনার পর পরই আমরা শিশুটির বাবাকে থানায় ডেকে নেই। এরপর পরেই আসামি ছপিত উল্লাহ মুন্সিকে গ্রেফতার করে থানায় নিয়ে আসা হয়।

Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!