সাবেক জাতীয় কাবাডি খেলোয়াড়কে হাত-পায়ের রগ কেটে হত্যা

স্পোর্টস: সাবেক জাতীয় দলের কাবাডি খেলোয়াড় ও রেফারি কাইয়ুম সিকদারকে (৪৮) হাত-পায়ের রগ কেটে হত্যা করা হয়েছে। তিনি নড়াইলের কালিয়া উপজেলার কলাবাড়িয়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) সদস্য ছিলেন। গত মঙ্গলবার রাত ৯টার দিকে নড়াইলের নড়াগাতি থানার উপজেলার বোয়ালিয়ার চর মন্দিরের কাছে এ হত্যাকা- ঘটে।

এ সময় তার সঙ্গে থাকা নড়াগাতি থানার কৃষকলীগের সভাপতি হাসনাত মোল্লার হাত ও পায়ের রগ কেটে দিয়েছেন দুর্বৃত্তরা। এলাকাবাসী জানায়, কয়েকজন নেতাকর্মীসহ কালিয়া উপজেলা থেকে মোটরসাইকেলে করে কলাবাড়িয়া ফিরছিলেন কাইয়ুম সিকদার ও হাসনাত মোল্লা। রাত ৯টার দিকে তারা বোয়ালিয়ার চর মন্দিরের কাছে পৌঁছালে আগে থেকে ওৎপেতে থাকা দুর্বৃত্তরা তাদের এলোপাতাড়ি কোপায়।

এতে কাইয়ুম সিকদারের হাত ও পা বিচ্ছিন্ন হয়ে যায়। পরে তাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নেওয়ার সময় তার মৃত্যু হয়। এ সময় সঙ্গে থাকা নড়াগতি থানার কৃষকলীগের সভাপতি হাসনাতের হাত ও পায়ের রগ কেটে দেয় দুর্বৃত্তরা। পরে তাকেও উদ্ধার করে খুলনা মেডিক্যাল কলেজ (খুমেক) হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। নড়াইল জেলার পুলিশ সুপার (এসপি) মোহাম্মদ জসিম উদ্দিন নিহতের বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, হত্যাকারীদের ধরতে পুলিশি অভিযান চলছে।

এ ছাড়া ঘটনাস্থলে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। জাতীয় কাবাডি দলের পরিচিত মুখ ছিলেন কাইয়ুম সিকদার। ১৯৯৫ মাদ্রাজ সাফ গেমসে জাতীয় দলের হয়ে অভিষিক্ত হয়ার পর ১৯৯৯ সাফ গেমস ও ১৯৯৮ এশিয়ান গেমসেও বাংলাদেশের হয়ে খেলেছেন তিনি।

একসময় বাংলাদেশ পুলিশ দলের হয়ে খেলা কাইয়ুম ২০১০ গুয়াংজু এশিয়ান গেমস ও ২০১০ মাস্কট বিচ গেমসে রেফারির দায়িত্ব পালন করেছিলেন। এ ছাড়া কাবাডি ফেডারেশনের সর্বশেষ নির্বাচিত কার্যনির্বাহী সদস্য ছিলেন তিনি।

Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *