সারাদেশেই হাট-বাজার খোলা জায়গায় সরিয়ে নেয়ার উদ্যোগ

এক্সক্লুসিভ: সারাদেশের হাটবাজার খোলা জায়গায় সরিয়ে নেয়ার উদ্যোগ নিয়েছে সরকার। মূলত করোনা ভাইরাসের কারণে সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখতেই এ উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। সারাদেশে খোলা জায়গায় নেয়া সরিয়ে হচ্ছে ১৭ হাজার ১৭৪টি হাটবাজার। ইতোমধ্যে ভূমি মন্ত্রণালয় থেকে সারাদেশের ডিসিদের কাছে এ নিয়ে চিঠি দেয়া হয়েছে। ৬৪ জেলার ডিসিরা মূল হাট ও বাজারের চৌহদ্দি থেকে কাঁচাবাজার, মাছ-বাজার, শাক-সবজির বাজারসমূহ নিকটবর্তী সরকারি খাস বা অন্য কোন সুবিধাজনক স্থানে এই আপদকালীন (করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাবকালীন) সময়ের জন্য স্থানান্তরের প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিচ্ছে। ভূমি মন্ত্রণালয় সংশ্লিষ্ট সূত্রে এ তথ্য জানা যায়।

সংশ্লিষ্ট সূত্র মতে, করোনা ভাইরাসজনিত কারণে হাট ও বাজারে ব্যাপক জনসমাবেশ বা উপস্থিতি সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখা সম্ভব হচ্ছে না। ফলে সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখার বিষয়ে সরকাান নির্দেশনা বাস্তবায়নের লক্ষ্যে, বিশেষ করে কাঁচাবাজার, মাছ-বাজার, শাক-সবজির বাজারসমূহ মূল বাজার-তোহা বাজারের চৌহদ্দি থেকে নিকটবর্তী সুবিধাজনক স্থানে সরিয়ে নেয়ার প্রয়োজন হয়ে পড়েছে। হাট ও বাজারসমূহের মালিকানা ভূমি মন্ত্রণালয়ের ১৯৫৯ সালের অর্ডিনেন্সের অধীনে পরিচালিত হয়ে আসছে।

জেলায় নতুন হাট ও বাজার স্থাপন ও বিলুপ্তির বিষয়টি জেলা কালেক্টরের (জেলা প্রশাসক) অন্যতম কাজ। সেক্ষেত্রে নতুন হাটবাজার সৃষ্টি আবশ্যক হলে কালেক্টর সংশ্লিষ্ট বিভাগীয় কমিশনারের মাধ্যমে ভূমি মন্ত্রণালয়ে প্রস্তাব পাঠায়। বর্তমানে কোভিড-১৯ এর বিস্তার ঠেকাতে লকডাউনের মধ্যে সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখার উদ্দেশ্যে দেশের হাটবাজারগুলো খোলা স্থানে সরিয়ে নেয়ার নির্দেশ দিয়েছে ভূমি মন্ত্রণালয়।

সূত্র জানায়, দেশের হাট-বাজার খোলা জায়গায় সরিয়ের বিষয়টি মূলত করোনা পরিস্থিতি মোকাবেলার জন্য একটি সমন্বিত উদ্যোগ। সরকারের পক্ষ থেকে বিভিন্ন মন্ত্রণালয় করোনা নিয়ে কাজ করে যাচ্ছে। ভূমি মন্ত্রণালয়ও করোনা মোকাবেলায় কাজ করছে। সামাজিক দূরত্বই একমাত্র ব্যবস্থা করোনা ঝুঁকি থেকে মানুষকে অনেকখানি রক্ষা করতে পারে। সেজন্যই সারাদেশের ১৭ হাজারের বেশি হাটবাজারকে খোলা জায়গায় নিয়ে যাওয়া হচ্ছে। তবে সেক্ষেত্রে অনেক জেলায় খাস জমি পাওয়া যাচ্ছে না। আবার কোনো কোন জেলায় বড় খোলা জায়গাও পাওয়া যাচ্ছে না।

তারপরও ভূমি মন্ত্রণালয়ের চেষ্টা অব্যাহত রয়েছে। স্বল্প সময়ের মধ্যেই খোলা জায়গায় হাটবাজারগুলো সরিয়ে নেয়া সম্ভব হবে। আর স্থানান্তরিত হাট ও বাজারের ক্রেতা ও বিক্রেতার সামাজিক দূরত্ব নিশ্চিতকরণের বিষয়ে বাজার ব্যবস্থাপনা কমিটি, স্থানীয় স্বাস্থ্য বিভাগ এবং সংশ্লিষ্ট আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী সংস্থার সহায়তা নেয়ার ডিসিদের বলা হয়েছে।

এ প্রসঙ্গে ভূমিমন্ত্রী সাইফুজ্জামান চৌধুরী জাবেদ জানান, করোনা ভাইরাস বিশ্বজুড়ে মহা দুর্যোগ ডেকে এনেছে। বাংলাদেশও এর বাইরে না। সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখা ও স্বাস্থ্যবিধি মানার জন্য ভূমি মন্ত্রণালয় খোলা জায়গায় হাটবাজার সরিয়ে নেয়ার জন্য ৬৪ জেলায় নির্দেশনা দিয়েছে। তবে করোনা পরিস্থিতি স্বাভাবিক হলে হাটবাজারগুলো সাবেক জায়গায় নিয়ে আসা হবে।

Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *