সৌদিতে ক্ষেপণাস্ত্র হামলা

বিদেশ : সৌদি আরবের তেল সমৃদ্ধ পূর্বাঞ্চলীয় এলাকায় ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র হামলা চালানো হয়েছে। ইয়েমেন থেকে হুথি বিদ্রোহীরা শনিবার ওই হামলা চালিয়েছে বলে জানা গেছে। তবে ক্ষেপণাস্ত্র কোনো লক্ষ্যে আঘাত হানার আগেই তা প্রতিহত করেছে সৌদি। একটি সূত্র জানিয়েছে, দাম্মাম শহরে আঘাত হানার আগেই ক্ষেপণাস্ত্রটি প্রতিহত করা সম্ভব হয়েছে। তবে ক্ষেপণাস্ত্র টুকরো টুকরো হয়ে দাম্মামের শহরতলীর আশপাশে ছড়িয়ে পড়ার সময় দুই শিশু আহত হয়েছে। এ ছাড়া আরও প্রায় ১৪টি আবাসিক ভবনের সামান্য ক্ষতি হয়েছে। সৌদির প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের বরাত দিয়ে এ তথ্য জানিয়েছে রাষ্ট্রীয় বার্তা সংস্থা এসপিএ। সৌদি জোট ওই হামলার জন্য ইরান-সমর্থিত হুথি গোষ্ঠীকে দায়ী করেছে। তবে হুথি গোষ্ঠীর পক্ষ থেকে তাৎক্ষণিকভাবে ওই হামলার দায় স্বীকার করা হয়নি। সৌদি জোট জানিয়েছে, জাজান এবং নাজরান প্রদেশের দিকে আরও দু’টি ক্ষেপণাস্ত্র হামলা প্রতিহত করা হয়েছে। এর আগে সৌদি জোট জানিয়েছিল,সৌদি আরব লক্ষ্য করে তিনটি বিস্ফোরক ড্রোন দিয়ে হামলার চেষ্টা প্রতিহত করেছে তারা। সৌদির পূর্বাঞ্চলে দেশটি বেশিরভাগ তেলক্ষেত্র অবস্থিত। এর আগেও ওই এলাকায় বেশ কিছু হামলার ঘটনা ঘটেছে। ২০১৯ সালের সেপ্টেম্বরে আরামকোর দুটি প্লান্টে ভয়াবহ হামলা চালানো হয়। ইয়েমেনের হুথি বিদ্রোহীরা প্রায়ই সৌদি আরব লক্ষ্য করে ড্রোন ও ক্ষেপণাস্ত্র হামলা চালিয়ে থাকে। এর আগেও সৌদির বিভিন্ন স্থানে হামলার দায় স্বীকার করেছে তারা। সৌদির প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, দেশের নিরাপত্তা নিশ্চিতে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। ২০১৫ সালে ইয়েমেনের যুদ্ধে হস্তক্ষেপ শুরু করে সৌদি নেতৃত্বাধীন জোট। সে কারণেই হুথিদের হামলার লক্ষ্যবস্তুতে পরিণত হয়েছে দেশটি।

Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!