সৌদির বিমানবন্দরে হুতিদের ড্রোন হামলা

বিদেশ : সৌদি আরবের দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলীয় আবহা আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে ইয়েমেনের হুতি বিদ্রোহীরা ড্রোন হামলা চালিয়েছে। সৌদি নেতৃত্বাধীন আরব জোট শুক্রবার ড্রোন হামলার কথা স্বীকার করলেও তাদের দাবি তারা বিস্ফোরক বোঝাই একটি ড্রোনটি আকাশেই ধ্বংস করতে সক্ষম হয়েছে। এদিকে মিসরের রাজধানী কায়রোতে আরব পার্লামেন্ট বিমানবন্দরে হুতিদের এ ধরনের হামলার নিন্দা জানিয়ে অপতৎপরতা বন্ধের দাবি জানিয়েছে।

আরব পার্লামেন্টের মুখপাত্র মিশাল বিন ফাহাম আল-সালমি গত রোববার এক বিবৃতিতে বলেছেন, বিমানবন্দরে মানুষের জানমালের নিরাপত্তার কথা চিন্তা করে অবশ্যই এ ধরনের সন্ত্রাসী হামলা বন্ধ করতে হবে ইয়েমেনের ওই বিদ্রোহী গোষ্ঠীকে। খবর সৌদি আরবের রাষ্ট্রীয় সংবাদ সংস্থা এসপিএ ও সিনহুয়ার। সৌদি আরব জানিয়েছে, আবহা বিমানবন্দরের আকাশ থেকে ড্রোনটি ভূপাতিত করা হয় এবং ড্রোনের কিছু ধ্বংসাবশেষ বিমানবন্দরের ওপরে পড়ে, তবে এতে কোনো হতাহতের ঘটনা ঘটেনি।

ইয়েমেনের আনসারুল্লাহ আন্দোলন এবং তাদের সমর্থিত সেনাবাহিনী গত মাসে সৌদি আরবের দক্ষিণাঞ্চলীয় জিজান প্রদেশের একটি গুরুত্বপূর্ণ তেল স্থাপনায় ড্রোন হামলা চালিয়েছিল। সেই সময়ও আরব জোট দাবি করেছিল- তারা চারটি ক্ষেপণাস্ত্র ও বিস্ফোরকবোঝাই ৬টি ড্রোন ভূপাতিত করেছে।

গত প্রায় এক বছর ধরে ইয়েমেনে হুতি যোদ্ধা এবং তাদের সমর্থিত সেনারা সৌদি আরবের বিভিন্ন তেল স্থাপনা থেকে শুরু করে নানা গুরুত্বপূর্ণ বিমানবন্দর ও স্থাপনায় ক্ষেপণাস্ত্র হামলা চালিয়ে আসছে। সৌদি আরব ও তার কয়েকটি আরব মিত্র দেশ ২০১৫ সালের মার্চ মাস থেকে দারিদ্র্যপীড়িত ইয়েমেনের ওপর আগ্রাসন চালিয়ে আসছে। ইয়েমেনের হুতিরা এ আগ্রাসনের বিরুদ্ধে এখন শক্ত প্রতিরোধ গড়ে তুলেছে।

Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *