হার থেকে শিখতে চায় পিএসজি

স্পোর্টস: খুব কাছে এসেও ছুঁয়ে দেখা হলো না স্বপ্নের শিরোপা। তবে হতাশায় ভেঙে না পড়ে হারের তিক্ত অভিজ্ঞতা থেকে শিক্ষা নিতে চায় পিএসজি। আরও শক্তিশালী দল গড়ে চ্যাম্পিয়ন্স লিগে ফেরার প্রত্যয় দলটির কোচ টমাস টুখেলের। লিসবনে রোববার রাতের ফাইনালে বায়ার্ন মিউনিখের কাছে ১-০ গোলে হারে ফরাসি চ্যাম্পিয়নরা। ব্যবধান গড়ে দেন পিএসজিরই একাডেমিতে বেড়ে উঠে ইউভেন্তুস হয়ে বায়ার্নে নাম লেখানো ফরাসি মিডফিল্ডার কিংসলে কোমান।

ম্যাচ জুড়ে অনেক সুযোগ হাতছাড়া করা পিএসজির লক্ষ্য আরও শক্তিশালী দল গঠন করা। ম্যাচ শেষে সংবাদ সম্মেলনে সেই আশার কথা শোনালেন টুখেল। “এই ধারা ধরে রাখতে আমাদের দারুণ একটা দল গঠন করতে হবে। এটা আমাদের চ্যালেঞ্জ। তেমন দল গড়তে আমি (স্পোর্টিং ডিরেক্টর) লিওনার্দো এবং যারা দায়িত্বে আছেন তাদের সঙ্গে কথা বলব।” মহাগুরুত্বপূর্ণ ফাইনালে জ¦লে উঠতে পারেননি পিএসজির তারকারা। মাঠে নেইমার-এমবাপেরা ছিলেন নিজেদের ছায়া হয়ে। আশা ভঙ্গের হতাশা দূরে ঠেলে দ্রুতই ঘুরে দাঁড়াতে চান জার্মান এই কোচ। “এই মুহূর্তে ঘুমানো কঠিন, কথা বলা শক্ত, ব্যাখ্যা করা মুশকিল।”

“তবে এখন থেকে, অন্তত আমি ও আমার সতীর্থরা আবারও শুরু করতে যাচ্ছি। ক্লাবের জন্য আমরা খুব গুরুত্বপূর্ণ কিছু দাঁড় করিয়েছি।” ফাইনালে যে কোনো দলই জিততে পারে। তাই ভেঙে পড়ার কারণও দেখছেন না তিনি। “এটা ছিল একটা লড়াই। মাঠে আমরা সবকিছু উজাড় করে দিয়েছি। তবে, ফলাফল তো নিয়ন্ত্রণ করা যায় না।” “আমার আগেই মনে হয়েছিল, ফাইনালে প্রথম গোলটিই ফল নির্ধারক হতে পারে। আমি হতাশ, তবে খুব বেশি না।

আমরা শিরোপার খুবই কাছে ছিলাম।” বেশ কিছু সুযোগও পেয়েছিল ফরাসি চ্যাম্পিয়নরা। কিন্তু নেইমার-এমবাপেরা কাজে লাগাতে পারেননি সুযোগ। তারা যদি পারতেন, দল যদি এগিয়ে যেতে পারতো, তাহলে ম্যাচের ফল অন্যরকম হতো বলে বিশ্বাস টুখেলের। “জয়ের জন্য আমাদের কী দরকার ছিল? প্রথম গোল। যদি আমরা প্রথম গোল করতে পারতাম, তাহলে হয়তো একই স্কোরলাইনে আমরা জিততাম।”

Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *