হুতিরা ক্ষেপণাস্ত্র হামলা বন্ধ করেছে সৌদি জোটের ওপর

আর্ন্তজাতিক: সৌদি আরব, সংযুক্ত আরব আমিরাত ও তাদের ইয়েমেনি মিত্র বাহিনীর ওপর ক্ষেপণাস্ত্র ও ড্রোন হামলা থামানোর ঘোষণা দিয়েছে ইয়েমেনের হুতি বিদ্রোহীরা।

সৌদি নেতৃত্বাধীন জোট বাহিনী ইয়েমেনের প্রধান বন্দর শহর হোদেইদায় হুতিদের বিরুদ্ধে লড়াই স্থগিত রাখার নির্দেশ দেওয়ার পর জাতিসংঘের দাবির মুখে সোমবার হুতিরা এ পদক্ষেপের ঘোষণা দেয়, খবর বার্তা সংস্থা রয়টার্সের। সম্প্রতি ইয়েমেনের যুদ্ধ এ বন্দরটিকে ঘিরেই আবর্তিত হচ্ছিল।

তিন বছর ধরে চলা ইয়েমেনের যুদ্ধে ১০ হাজারেরও বেশি লোক নিহত হয়েছে ও দেশটিকে দুর্ভিক্ষের প্রান্তে ঠেলে দিয়েছে। এই পরিস্থিতিতে যুদ্ধ শেষ করার জন্য ইয়েমেনের লড়াইরত পক্ষগুলোর ওপর প্রবল আন্তর্জাতিক চাপ তৈরি হয়েছে।

হুতিদের সর্বোচ্চ বিপ্লবী কমিটির প্রধান মোহাম্মদ আলি আল হুতি এক বিবৃতিতে বলেছেন, “জাতিসংঘের দূতের সঙ্গে যোগাযোগ হওয়ার পর ড্রোন ও ক্ষেপণাস্ত্র হামলা বন্ধ করার অনুরোধ করেছেন তিনি। তার অনুরোধে সাড়া দিয়ে আগ্রাসী দেশগুলোর ওপর ক্ষেপণাস্ত্র ও ড্রোন হামলা থামানোর সিদ্ধান্ত ঘোষণা করছি আমরা।”

সেপ্টেম্বরে হুতিরা না আসায় জাতিংঘের একটি শান্তি আলোচনার উদ্যোগ ভেস্তে যায়। ইয়েমেন বিষয়ে জাতিসংঘের বিশেষ দূত মার্টিন গ্রিফিথস শান্তি আলোচনার উদ্যোগ ধরে রাখার চেষ্টা করছেন। চলতি বছর শেষ হওয়ার আগেই ইয়েমনের লড়াইরত পক্ষগুলোর মধ্যে সুইডেনে একটি আলোচনা শুরুর আশা করছেন তিনি।

ওই আলোচনায় একটি ক্রান্তিকালীন সরকারের অধীনে ইয়েমেনের যুদ্ধ বন্ধ করার লক্ষ্য নির্ধারণ করা হয়েছে।

Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *