১৮ বছর পর আবারো একসঙ্গে হৃতিক-কারিনা

বিনোদন: হৃতিক রোশন ও কারিনা কাপুর খান জুটি বলিউডের জনপ্রিয় জুটিগুলোর মধ্যে অন্যতম একটি। ‘কাভি খুশি কাভি গাম’, বা ‘ইঁয়াদে’ বা ‘মুজসে দোস্তি কারোগে’ সব সিনেমায় তাদের জুটিকে মানুষ পছন্দ করেছে। শেষ তারা একসঙ্গে কাজ করেছেন ২০০৩ সালে। ‘ম্যায় প্রেম কি দিওয়ানি হু’ ছবিতে। এরপর মাঝখানে পার হয়ে গেছে ১৮টা বছর। একসঙ্গে দেখা যায়নি তাদের। তবে বলিউডে জোর খবর আবারও একসঙ্গে কাজ করতে যাচ্ছেন এই জুটি। মাঝখানের ১৮ বছরে সাইফ আলি খানকে বিয়ে করে দুই সন্তানের মা কারিনা। ওদিকে সুজানের সঙ্গে বিয়ে, ডিভোর্স, দুই ছেলে নিয়ে এক যুগ পার করে ফেলেছেন হৃতিক রোশনও। জানা গেছে, বলিউডের নামী প্রোডাকশন হাউস ‘জংলি পিকচার্স’-এর পক্ষ থেকে নতুন ছবির জন্য প্রস্তাব দেওয়া হয়েছে হৃতিক ও কারিনাকে। ছবির নামও ঠিক হয়ে গেছে। উলাজ। এই ছবির স্ক্রিপ্ট শুনতে রাজি হয়েছেন দুজনেই। শোনা যায়, দীর্ঘদিন মনোমালিন্য ছিল এই জুটির। এবার সব কিছু কাটিয়ে একসঙ্গে কাজ করবেন তারা। ছবির শুটিং বেশিরভাগ হবে মুম্বাইয়ের বাইরে। তাই কথা চলছে দুজনের ডেট নিয়েও। এখন দেখার বিষয়, কবে সিনেমার কাজ শুরু করেন তারা। ২০০০ সালে মুক্তি পায় আমিশা প্যাটেল ও হৃতিক রোশন অভিনীত ‘কাহোনা পেয়ার হ্যায়’। এই সিনেমার মাধ্যমে বলিউডে পা রাখেন হৃতিক। প্রথমে এই সিনেমা করার কথা ছিল কারিনার। কিন্তু মা ববিতা বাঁধ সাধেন। কারণ ছবিটি ছিল নায়ককেন্দ্রিক। আর সেজন্য মেয়েকে এই ছবি দিয়ে ক্যারিয়ার শুরু করতে দেননি ববিতা। কারিনা ডেবিউ করেন ‘রিফিউজি’ সিনেমা দিয়ে। তার বিপরীতে ছিলেন অভিষেক বচ্চন। সেসময় অভিষেক ও কারিশ্মার প্রেম নিয়ে বলিউড জোর আলোচনা চলছিল। বিয়ের কথাও পাকা হয়ে গিয়েছিল কারিশ্মা-অভিষেকের। কিন্তু দুই পরিবারের মনোমালিন্যে বিয়ে ভেঙে যায়। তবে সেসব ব্যক্তিগত বিষয় প্রফেশনাল জীবনেও অনেক প্রভাব ফেলে। তবে এর সঙ্গে হৃতিকের সম্পর্ক নেই। কারিনা ও হৃতিকের কী কারণে মনোমালিন্য তা জানা যায়নি। এবার সব ভুলে একসঙ্গে পর্দায় আসবেন তারা। স্বাভাবিকভাবেই এই জুটিকে দর্শক খুব পছন্দ করেন। এবার দেখার ১৮ বছর পর কারিনা ও হৃতিকের অনস্ক্রিন ম্যাজিক কতটা হিট হয়।

Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *